উইকিশৈশব:এটা কীভাবে কাজ করে/শব্দকোষ

বলসম্পাদনা

  • বল — টানা, প্যাঁচানো বা ত্বরণ সৃষ্টিকারী ঘটনা।
  • যান্ত্রিক সুবিধা বা যান্ত্রিক উপকারিতা — যন্ত্রের মাধ্যমে প্রয়োগকৃত বলের গুণন অনুপাত।
  • কাজ — বল(F) ও বলের অভিমুখে সরণের(s) গুণফলই হলো কাজ।(W) অর্থাৎ  

গতিসম্পাদনা

 
গতি নিয়ে
  • গতি — যদি কোনো বস্তুর অবস্থান সময়ের সাথে পরিবর্তিত হয়, তবে তা চলন।
  • স্থির — যদি কোনো বস্তুর অবস্থান সময়ের সাথে পরিবর্তিত না হয়, তবে সেই বস্তু স্থির।
  • দূরত্ব — আদি ও সর্বশেষ অবস্থানের মধ্যবর্তী দূরত্বের দৈর্ঘ্যকে সরণ বলে।
  • সরণ — একটি নির্দিষ্ট দিকে কোনো বস্তুর অবস্থানের পরিবর্তনকে সরণ বলে।

বিদ্যুৎসম্পাদনা

 
ওহমমিটার
  • বিদ্যুৎ প্রবাহ — পরিবাহীর মধ্য দিয়ে ইলেকট্রনের প্রবাহই বিদ্যুৎ প্রবাহ।
  • ওহম — রোধ মাপার আদর্শ একক।
  • মেগা-ওহম — দশ লক্ষ ওহমের সমান একক।
  • অ্যামপিয়ার — বিদ্যুৎ প্রবাহ মাপার একক।
  • ওহমমিটার — ওহমমিটার রোধ মাপার এক ধরণের যন্ত্র। এটি ওহম এককে বিদ্যুৎ মাপে।
  • মেগা-ওহমমিটার — অতি উচ্চ বিভব মাপার যন্ত্র। এর একক মেগা-ওহম।
  • অ্যামিটার — বিদ্যুৎ প্রবাহ মাপার যন্ত্র। এটি অ্যাম্পিয়ার এককে বিদ্যুৎ প্রবাহ মাপে।
  • ভোল্টমিটার— দুইটি বিন্দুর বিভব পার্থক্য মাপার যন্ত্র হচ্ছে ভোল্টমিটার।
  • বিভব পতন — যন্ত্রের অভ্যন্তরীণ রোধের জন্য প্রদত্ত ও প্রাপ্ত বিভবের পার্থক্য হচ্ছে বিভব পতন।
  • বিভব পার্থক্য — দুইটি বিন্দুর বিভবের পার্থক্যই হলো বিভব পার্থক্য।
  • সরাসরি প্রবাহ (ডিসি) — বিদ্যুৎ প্রবাহ মাত্র একদিকে যায়।
  • পরিবর্তনশীল প্রবাহ (এসি) — যে বিদ্যুৎ প্রবাহের দিক নিয়ত পরিবর্তনশীল, তাকে পরিবর্তনশীল প্রবাহ বলে।
  • তড়িৎ কোষ — রাসায়নিক শক্তিকে বিদ্যুৎ শক্তিতে রূপান্তরকারী যন্ত্র।