উইকিশৈশব:পাখপাখালির দেশে/বক

মাছ শিকারে ব্যস্ত বক,স্থান:শখেরবাজার, কলকাতা
MG 1199 copy.jpg
বকের বিভিন্ন প্রজাতির বিস্তৃতি

বক পক্ষী শ্রেণীর নিওরনিথেস উপশ্রেণীর নিওন্যাথি অধোশ্রেণীর নিওএভস অধিবর্গের পেলেক্যানিফর্ম বর্গের অন্তর্গত। আর্ডেইডি গোত্রের অন্তর্গত বক লম্বা পা বিশিষ্ট মিঠাপানির জলাশয় ও উপকূলীয় অঞ্চলে বসবাসকারী মৎস্যভোজী একদল জলচর পাখিকে বক বলা হয়। পৃথিবীতে স্বীকৃত মোট ৬৪ প্রজাতির বক রয়েছে। এসব বকের কিছু প্রজাতি আকৃতিভেদে বগলা বা বিটার্নবগা বা এগরেট নামে পরিচিত। বোটরাস এবং ইক্সোব্রাইকাস গণের সদস্যরা বগলা নামে পরিচিত আর বগাদের শরীরে সাদার প্রাধান্য বেশি। সারা বিশ্বে বিভিন্ন প্রজাতির বকের বিস্তৃতি থাকলেও নিরক্ষীয়ক্রান্তীয় অঞ্চলে এদের বিস্তৃতি সবচেয়ে বেশি।[১] মরু ও মেরু অঞ্চলে বক অনুপস্থিত। এটি নিম্ন ইয়াসিন যুগ থেকে বর্তমান বিশ্বে বিচরণকারী একটি প্রাণী।

প্রজাতিসম্পাদনা

উপপরিবার টাইগ্রিওরনিথিডি

  • গোত্র ককলিয়ারিয়াস – বোট-বিলড বক
  • গোত্র ট্যাফোফয়েক্স (ফ্লোরিডা থেকে জীবাশ্ম আবিষ্কৃত হয়েছে)
  • গোত্র টাইগ্রিসোমা – তিনটি প্রজাতির
  • গোত্র টাইগ্রিওরনিস – সাদা-ক্রেস্ট টাইগার বক
  • গোত্র জোনেরোডিয়াস – বনচর

উপপরিবার বোটাওরিনি

  • গোত্র জেব্রিলাস - দাগকাটা বক
  • গোত্র ইক্সোব্রাইকাস – ছোট প্রজাতি
  • গোত্র বোটাওরাস – চারটি প্রজাতি
  • গোত্র পিকাইহাও - নিউজিল্যান্ড থেকে প্রাপ্ত জীবাশ্ম

উপপরিবার আরডেইনি

  • গোত্র জেলটরনিস - লিবিয়া থেকে প্রাপ্ত
  • গোত্র নিকটিকোরাক্স – দুটি জীবিত এবং চারটি লুপ্ত প্রজাতি
  • গোত্র নিকটানাসা – একটি জীবিত ও একটি লুপ্ত প্রজাতি
  • গোত্র গরসাচিয়াস
  • গোত্র বুটোরাইডস – সবুজ রঙের পিঠ বিশিষ্ট
  • গোত্র আগামিয়া
  • গোত্র পিলহেরোডিয়াস
  • গোত্র আরডিওলা – ছয়টি প্রজাতি
  • গোত্র বুলবুলকাস
  • গোত্র প্রোয়ারডি
  • গোত্র আরডি – ১৭টি প্রজাতি
  • গোত্র সিরিগ্মা
  • গোত্র এগরেটা
  • গোত্র অশনাক্ত
    • ইস্টার দ্বীপের বক

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. "Heron"। Encyclopedia Britannica। সংগ্রহের তারিখ ২১ জুলাই ২০১৩