উপস্থাপনার সময় আরও যে সমস্ত দিক গুলো লক্ষ্য রাখতে হবেসম্পাদনা

১) আপনার বক্তব্যের বিষয় সম্পর্কে ভালোভাবে জেনে নিন।

২) বক্তব্যের বিষয় অনুযায়ী একটি ভালো স্ক্রিপ্ট তৈরি করুন।

৩) স্বাভাবিকভাবে আসা স্নায়বিক দুর্বলতাকে রিলাক্সেশানে পরিণত করে নিন।

৪) পাবলিকলি বক্তব্য প্রদানের সময় হঠাৎ মনে আসা কোন পয়েন্ট/কোট নিয়ে কথা বলবেন না।

৫) নিজের স্নায়বিক দুর্বলতার জন্য অ্যাপোলজি জানানোর দরকার নেই। আপনার শ্রোতারা হয়তো সেটি লক্ষ্যই করেনি।

৬) বক্তব্য উপস্থাপনের সময় মোবাইল ফোন ব্যবহার করবেন না।

৭)উপস্থাপকের বাচনভঙ্গি ও শ্রোতাদের সাথে মিথষ্ক্রিয়া ভালো হতে হবে।

৮)বলা বা উপস্থাপনের জন্য কয়েকটি বিষয় আয়ত্তে আনা জরুরি:

ক. শুদ্ধ উচ্চারণ

খ. উচ্চারণে স্পষ্টতা

গ. কণ্ঠস্বরের স্তর নির্ণয়

ঘ. স্বরের ওঠানামা

ঙ. আবেগ

চ. ছন্দ

ছ. গতি