China on the globe (Asia centered).svg
[[চিত্র:Flag of China

.svg

|100px]] চীন
গণপ্রজাতন্ত্রী চীনের প্রতীক

চীন পূর্ব এশিয়ার একটি রাষ্ট্র। এটা গণপ্রজাতন্ত্রী চীন নামেও পরিচিত, কারণ তাইওয়ান প্রজাতন্ত্রী চীন নামে পরিচিত। চীনের আছে পৃথিবীর বৃহত্তম জনসংখ্যাঃ ১.৩৫৭ বিলিয়ন। চীনের আয়তন প্রায় ৩,৭০৫,৪০৫ বর্গ মেইল, এটা পৃথিবীর তৃতীয় ( রাশিয়া এবং কানাডার পর) অথবা চতুর্থ (রাশিয়া, কানাডা এবং মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের পর) বৃহত্তম রাষ্ট্র, নির্ভর করে কে কত নম্বরে গণণা করবে। চীনের রাজধানী বেইজিং এবং বর্তমান রাষ্ট্রপতি যি জিনপিং।

চীন কোথায়?সম্পাদনা

চীন পূর্ব এশিয়ায় অবস্থিত। চীনের পূর্ব দিকে দক্ষিণ চীন সাগরে দীর্ঘ তটরেখা রয়েছে, যেটি প্যাসিফিক মহাসাগরের অংশ। এটার উত্তর সীমান্তে রাশিয়া, মঙ্গোলি এবং উত্তর কোরিয়া অবস্থিত, পশ্চিম সীমান্তে, কাজাকিস্তান, কিরজিস্তান, তাজাকিস্তান, এবং আফগানিস্তান, দক্ষিণ পশ্চিম দিকে, পাকিস্তান, ভারত, নেপাল, এবং ভুটান, এবং দক্ষিণ পূর্ব দিকে, বুরমস, লাওস, এবং ভিয়েতনাম অবস্থিত।

চীনের জনসংখ্যা কত?সম্পাদনা

১,৩৫৭,৩৮০,০০০ বিলিয়ন মানুষ চীনে বাস করে, এই জনসংখ্যা চীনকে পৃথিবীর বৃহত্তম জনসংখ্যার দেশ বানিয়েছে। চীনের জনসংখ্যা পুরো পৃথিবীর জনসংখ্যার ২০%, যেটির মানে পৃথিবীর প্রত্যেক ৫ জনের মধ্যে ১ জন চীনা! বেশির ভাগ মানুষ (৯১.৫%) হল হান জাতির, এবং তারা অধিকাংশ পূর্ব এবং দক্ষিণ দিকের, শানঘাই, বেইজিং এবং হংক এর মতো বড় শহরে বাস করে। অন্যান্য ৮.৫% জনসংখ্যা হল সংখ্যালঘুদের।

এই সংখ্যা দেখলে মনে হয় ছোট সংখ্যা, কিন্তু চীন খুবই বড়, ৮.৫% মানে ১১০ মিলিয়ন জনসংখ্যার বেশি, যেটি ইউরোপীয় দেশগুলোর চেয়ে অনেক বেশি! ৫৬টি বৃহত্তম সংখ্যালঘু জাতিগুলো হল:

  • Zhuang (১৭ মিলিয়ন) বাস করে চীনের দক্ষিণে ভিয়েতামের কাছাকাছি এবং কথা বলে থাই এবং লাও এর ভাষার দলের ভাষায়।
  • হুই (১১ মিলিয়ন) চীনের সব এলাকাহ বাস করে। তারা মান্দারিন ভাষায় কথা বলে এবং জাতির দিক থেকে হান, কিন্তু এরা সুন্নি মুসলমান।
  • Uyghur (১০ মিলিয়ন) হল উত্তর পশ্চিমের Xinjiang জনগোষ্টীর বৃহত্তম দল। তারা সকলে তুর্কি ভাষায় কথা বিলে এবং তারা সুন্নি মুসলমান।
  • মিয়াও (চীনে ৯ মিলিয়ন) রা দক্ষিণদিকে সংখ্যালঘু এবং মিয়াও ভাষায় কথা বলে। হোমংরা হল মিয়াওদের উপগোষ্টজ তারা ভিয়েতনাম (১ মিলিয়ন) এবং লাওস (.৫) মিলিয়ন) এ বাস করে।
  • মাঞ্চু (১০ মিলিয়ন) মাঞ্চুরিয়া বসবাস করে এবং ঐতিহাস্যিক ভাবে মাঞ্চু ভাষায় কথা বলে, কিন্তু বর্তমানে অধিকাংশ মান্দারিন ভাষায় কথা বলে। মাঞ্চু জাতির Qing রাজবংশ, ১৬৪৪ থেকে ১৯১২ পর্যন্ত চীনে রাজত্ব করেছে।
  • Yi (৮ মিলিয়ন) মধ্য এবং দক্ষিণ চীনে সংখ্যালঘিষ্ট। তারা Yi, একটি বর্মীয়.ভাষায় কথা বলে।
  • তুজিয়া (৮ মিলিয়ন) মধ্য চীনের উইলিং পর্বতে বাস করে।
  • তিব্বতীয় (৭ মিলয়ন) তিব্বতে বাস করে। পৃথিবীর সর্বোচ্চ শৃঙ্গ হিমালয়ে বাস করে।
  • মঙ্গোলিয় (চীনে ৬ মিলিয়ন)

চীনের শাসক ও শাসনসম্পাদনা

চীনের রাষ্ট্রীয় পরিষদ অর্থাৎ কেন্দ্রীয় গণ-সরকার দেশের সর্বোচ্চ প্রশাসনিক সংস্থা। রাষ্ট্রীয় পরিষদ চীনের জাতীয় গণ কংগ্রেস ও তার স্ট্যান্ডিং কমিটির প্রনয়ন করা আইন ও গৃহিত প্রস্তাবগুলো কার্যকরী করে, জাতীয় গণ কংগ্রেস ও তার স্ট্যান্ডিং কমিটির অর্পিত দায়িত্ব পালন করে এবং তার কাছে কার্যবিবরণী দেয়। রাষ্ট্রীয় পরিষদের দায়িত্ব ও ক্ষমতার আওতার মধ্যে প্রশাসনিক ব্যবস্থা নেয়ার, প্রশাসনিক আইনবিধি প্রনয়নের আর সিদ্ধান্ত ও নির্দেশ দেয়ার অধিকার আছে। রাষ্ট্রীয় পরিষদ প্রধানমন্ত্রী, উপপ্রধানমন্ত্রী, রাষ্ট্রীয় কাউনসিলার, বিভিন্ন মন্ত্রনালয়ের মন্ত্রী, বিভিন্ন কমিটির চেয়ারম্যান, মহা নিরীক্ষক ও মহাসচিব নিয়ে গঠিত। বর্তমানে প্রধানমন্ত্রী হচ্ছেন ওয়েন চিয়া পাও। বর্তমানে চীনের রাষ্ট্রীয় পরিষদের অধীনে মোট ২৮টি মন্ত্রনালয় পর্যায়ের বিভাগ আছে, এগুলো হলোঃ পররাষ্ট্র মন্ত্রনালয়, প্রতিরক্ষা মন্ত্রনালয়, জাতীয় উন্নয়ন ও সংস্কার কমিশন, শিক্ষা মন্ত্রনালয়, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মন্ত্রনালয়, প্রতিরক্ষা বিষয়ক বিজ্ঞান ও প্রযুক্তিবিদ্যাগত শিল্প কমিশন, জাতীয় সংখ্যালঘু জাতি বিষয়ক কমিশন, গণ-নিরাপত্তা মন্ত্রনালয়, জাতীয় নিরাপত্তা মন্ত্রনালয়, অভিশংসক বিভাগ, গণ-কল্যান মন্ত্রনালয়, অর্থ মন্ত্রনালয়, কর্মচারী ব্যবস্থাপনা মন্ত্রনালয়, শ্রম ও সামাজিক নিশ্চয়তাবিধান মন্ত্রনালয়, রেল মন্ত্রনালয়, যানবাহন মন্ত্রনালয়, রাষ্ট্রীয় ভূমি সম্পদ মন্ত্রনালয়, পূর্ত মন্ত্রনালয়, তথ্য শিল্প মন্ত্রনালয়, জল প্রকল্প মন্ত্রনালয়, সংস্কৃতি মন্ত্রনালয়, স্বাস্থ্য মন্ত্রনালয়, কৃষি মন্ত্রনালয়, বানিজ্য মন্ত্রনালয়, জাতীয় লোকসংখ্যা ও পরিবার-পরিকল্পনা কমিশন, চীনা গন ব্যাংক ও নিরীক্ষা অধিদপ্তর।

চীনে কোন কোন খেলাধুলা খেলা হয়?সম্পাদনা

  উইকিশৈশব:এশিয়া সম্পাদনা