উইকিশৈশব:সৌরজগৎ/শব্দকোষ

সৌরজগৎ

ভূমিকা
আমাদের সৌরজগৎ
সূর্য
বুধ
শুক্র
পৃথিবী
চাঁদ
মঙ্গল
গ্রহাণুপুঞ্জ
বৃহস্পতি
শনি
ইউরেনাস
নেপচুন
প্লুটো
ধূমকেতু
কুইপার বেষ্টনী
উর্ট মেঘ
পরিভাষাকোষ
পরীক্ষা

এই বইতে ব্যবহৃত শব্দের একটি শব্দকোষ:

  • অ্যান্টিম্যাটার : স্বাভাবিক পদার্থের বিপরীত। সাধারণত ল্যাবরেটরির বাইরে পাওয়া যায় না। পদার্থের সাথে মিশে গেলে তারা একে অপরকে বাতিল করে দেয় এবং প্রচুর শক্তি ছেড়ে দেয়।
  • আরাকনয়েড: বুনন প্রতিযোগিতার কিংবদন্তীর মতো মাকড়সার মতো আকৃতির কিছুর জন্য একটি বৈজ্ঞানিক শব্দ।
  • গ্রহাণু: একটি বড় পাথুরে বস্তু যা একটি নক্ষত্রকে প্রদক্ষিণ করে, কিন্তু একটি গ্রহ হওয়ার জন্য খুব ছোট। এটি মহাকাশে পাওয়া যায়।
  • জ্যোতির্বিজ্ঞানী: এমন ব্যক্তি যিনি তারকা এবং গ্রহ অধ্যয়ন করেন। এছাড়াও একজন ব্যক্তি যিনি নতুন গ্রহ এবং সৌরজগৎ অন্বেষণ করেন।
  • নভোচারী: একজন ব্যক্তি যিনি পৃথিবীর বায়ুমণ্ডলের বাইরে ভ্রমণ করেন।
  • বায়ুমণ্ডল: গ্রহের চারপাশে গ্যাসের স্তর।
  • পরমাণু: একটি অতি ক্ষুদ্র কণা যা পদার্থের মৌলিক বিল্ডিং ব্লক। এটি পৃথিবীর সবচেয়ে ক্ষুদ্রতম জিনিস।
  • বেসাল্ট লাভা: গলিত বেসাল্ট, আগ্নেয়গিরি থেকে এক ধরনের শিলা।
  • বেল্ট: বৃহস্পতির গাঢ় রঙের মেঘের স্তরগুলির জন্য ব্যবহৃত একটি নাম।
  • বাইনোকুলার: প্রতিটি চোখের জন্য একটি আইপিস সহ ছোট টেলিস্কোপের একটি ভাঁজ জোড়া।
  • কার্বন ডাই অক্সাইড: একটি গ্যাস যা প্রাণী শ্বাস নেয় এবং গাছপালা গ্রহণ করে।
  • কার্বোনেসিয়াস চন্ড্রাইট: এক ধরনের উল্কা যাতে প্রচুর পানি এবং জৈব যৌগ থাকে।
  • পরিচলন: গ্যাস বা তরলে এক ধরনের আন্দোলন যা শীতল অবস্থানের দিকে তাপ বহন করে। যখন গ্যাস বা তরল ঠান্ডা হয়, এটি আবার নিচে ডুবে যায়।
  • সেন্টোর: একটি বরফযুক্ত গ্রহ যা বৃহস্পতি এবং নেপচুনের মধ্যে সূর্যকে প্রদক্ষিণ করে।
  • চ্যানেল: কোন কিছুর পৃষ্ঠে একটি খাঁজ।
  • ধূমকেতু: একটি ছোট বরফ বস্তু একটি নক্ষত্রকে প্রদক্ষিণ করে।
  • সংযোগ: যখন একই বস্তুকে প্রদক্ষিণ করে দুটি বস্তু একসাথে কাছে আসে।
  • মহাদেশ: একটি গ্রহে একটি বিশাল স্থলভাগ, সাধারণত টেকটোনিক প্লেট দিয়ে তৈরি যা একসঙ্গে তালাবদ্ধ থাকে।
  • মূল: একটি গ্রহ বা নক্ষত্রের কেন্দ্র।
  • করোনা: খুব গরম গ্যাসের একটি অঞ্চল যা একটি নক্ষত্রের ফটোস্ফিয়ারকে ঘিরে।
  • অগ্নিমুখ: একটি উল্কা দ্বারা তৈরি একটি গ্রহের পৃষ্ঠে একটি ডেন্ট এটি উপর পড়ে।
  • ক্রাস্ট: একটি গ্রহের পৃষ্ঠের বাইরেরতম স্তর।
  • বামন গ্রহ: একটি গোলাকার ক্ষেত্র যা সূর্যের চারদিকে প্রদক্ষিণ করে। এটি একটি চাঁদ নয় এবং এটি তার কক্ষপথ বরাবর অন্যান্য বস্তু ঝাড়ার জন্য যথেষ্ট বড় নয়।
  • গ্রহন: একটি বস্তু যখন অন্য বস্তু এবং সূর্যের মধ্যে আসে তখন তৈরি ছায়া।
  • শক্তি: আপনি কাজ করতে যা ব্যবহার করেন।
  • পরিবেশ: একটি গ্রহের অবস্থা।
  • নিরক্ষরেখা: একটি গ্রহের চারপাশে একটি কাল্পনিক রেখা, ঘূর্ণন অক্ষের লম্ব।
  • ক্ষয়: বায়ু, পানি এবং তাপমাত্রা পরিবর্তনের ফলে একটি পৃষ্ঠের ধীরগতির পরিধান। *গ্যালাক্সি: গ্যাস, ধুলো, তারা, গ্রহ এবং অন্যান্য বস্তুর বিশাল সংমিশ্রণ যা তাদের নিজস্ব মাধ্যাকর্ষণ দ্বারা একসাথে থাকে।
  • গ্যাস জায়ান্ট: গ্যাসের বিশাল বল থেকে তৈরি চারটি বাইরের গ্রহের মধ্যে একটি।
  • মাধ্যাকর্ষণ: যে শক্তি ভর দিয়ে কোন কিছুকে টেনে নেয় (মাধ্যাকর্ষণ, ভর এবং ওজন বিভাগ সম্পর্কে দেখুন)।
  • গোলার্ধ: একটি গ্রহের পৃষ্ঠের অর্ধেক।
  • বরফের ক্যাপ: একটি গ্রহের মেরুতে বরফের বিশাল ক্ষেত্র।
  • ল্যাঙ্গুয়েজ বিন্দু: দুটি কক্ষপথের বস্তু থেকে মাধ্যাকর্ষণ পরস্পরের ভারসাম্য বজায় রাখার জায়গা।
  • লাভা: একটি গ্রহের পৃষ্ঠের উপরে গলিত শিলা।
  • ল্যাটিন: রোমান সাম্রাজ্যের ভাষা যা পরে বিজ্ঞানীরা জিনিসের নামকরণে ব্যবহার করেছিলেন। *ম্যান্টল: একটি গ্রহের ভূত্বকের নিচে গলিত পাথরের একটি স্তর।
  • মারিয়া: ম্যাগমার একটি বিশাল সমুদ্র যা কঠিন শিলায় ঠান্ডা হয়ে গেছে।
  • ভর: কোন বস্তু যে বস্তু দিয়ে তৈরি হয় তার পরিমাণ (মাধ্যাকর্ষণ, ভর এবং ওজন বিভাগ সম্পর্কে দেখুন)।
  • ম্যাটার: 'স্টাফ' এর জন্য একটি বৈজ্ঞানিক শব্দ।
  • উল্কা: মহাকাশ থেকে একটি ছোট বা মাঝারি আকারের শিলা যা একটি গ্রহের বায়ুমণ্ডলে প্রবেশ করেছে কিন্তু মাটিতে পৌঁছায়নি।
  • উল্কা ঝরনা: বিপুল সংখ্যক উল্কা যা প্রায় একই সময়ে একটি গ্রহের বায়ুমণ্ডলে প্রবেশ করে।
  • উল্কা: একটি উল্কা যা এটি একটি গ্রহের বায়ুমণ্ডলের মাধ্যমে তৈরি করে এবং মাটিতে অবতরণ করে।
  • মিথেন: একটি গ্যাস যা বেশিরভাগ গ্যাস দৈত্য তৈরি করে।
  • পৃথিবীর গ্রহাণুর কাছাকাছি: একটি গ্রহাণু যার একটি কক্ষপথ রয়েছে যা এটিকে পৃথিবীর খুব কাছে নিয়ে আসে।
  • নিউটন: পরিমাপের একটি ইউনিট বর্ণনা করে যে কিভাবে কঠিন মাধ্যাকর্ষণ আপনাকে নিচে টেনে নিয়ে যাচ্ছে (মাধ্যাকর্ষণ, ভর এবং ওজন বিভাগ সম্পর্কে দেখুন)।